অপরাজিতা ফুলের উপকারিতা কি - অপরাজিতা ফুলের বৈশিষ্ট্য

প্রিয় পাঠক আপনারা অনেকেই বিভিন্ন ধরনের রোগে ভুগে থাকেন এমন কিছু রোগ রয়েছে যে সমস্ত রোগের ডাক্তারের কাছ থেকে ঔষধ খেলে ভালো হয়ে যায় আবার কিছু রোগ রয়েছে যেগুলি গাছের ঔষধ খেতে হয় কোম্পানির ঔষধে কাজে আসে না
অপরাজিতা ফুলের উপকারিতা কি - অপরাজিতা ফুলের বৈশিষ্ট্য
আজকে আমি আপনাদেরকে সেই গাছ সম্পর্কে পরিচয় দেওয়ার চেষ্টা করব সে গাছটি হলো অপরাজিতা এ গাছের কি কি উপকরণ রয়েছে এবং এ গাছের ফুলের বৈশিষ্ট্য কি এই গাছটি কিভাবে খেতে হয় সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করব ধৈর্য ধারণ করে আমাদের সাথেই থাকুন 

সূচিপত্রঃ অপরাজিতা ফুলের উপকারিতা কি - অপরাজিতা ফুলের বৈশিষ্ট্য

  • প্রচলিত নাম
  • বৈজ্ঞানিক নাম
  • ব্যবহৃত অংশ
  • রাসায়নিক উপাদান
  • প্রধান কাজ
  • হরমোনের জন্য কার্যকারিতা
  • বাত ব্যথা ও সন্ধি বেদনায় কার্যকারিতা
  • কোষ্ঠকাঠিন্যের কার্যকারিতা
  • স্ত্রীর যৌনাঙ্গের সমস্যায় ব্যবহার করা হয়
  • মূত্রনালীর সমস্যার জন্য ব্যবহার করা হয়
  • পাকস্থলীর ব্যাথার জন্য ব্যবহার করা হয়
  • চর্মরোগের জন্য ব্যবহার করা হয়
  • গনোরিয়ার জন্য ব্যবহার করা হয়
  • সেবন বিধি
  • সতর্কতা
  • লেখকের শেষ কথা

প্রচলিত নাম

প্রিয় পাঠক এই গাছটির প্রচলিত নাম হলো অপরাজিতা

বৈজ্ঞানিক নাম

প্রিয় পাঠক বৈজ্ঞানিকরা এই গাছটির নাম দিয়েছেন--CLITORIA TERNATEAL

ব্যবহৃত অংশ

প্রিয় পাঠক আমরা অপরাজিতা গাছকে চিনি কিন্তু আমরা অনেকেই জানিনা যে এই গাছের কি কি ব্যবহার করা হয় এবং কোন কোন অংশ ব্যবহার করতে পারবেন সে বিষয়টা অনেকেরই অজানা এখন আমি আপনাদেরকে সে বিষয়ে বলব

সম্পূর্ণ উদ্ভিদ মূল পাতা মূলের ছাল ও বীজ সবকিছুই ব্যবহার করতে পারবেন সবকিছুর মধ্যে উপকার রয়েছে 

রাসায়নিক উপাদান

প্রিয় পাঠক অপরাজিতা গাছের মধ্যে কিছু রসায়নিক উপাদান রয়েছে যেগুলি আমি আপনাদেরকে আপনাদের সুবিধার জন্য বলে দেওয়ার চেষ্টা করব তো চলুন জানা যাক

ক্যামপ্র ফেরোল গ্লাইকোসাইড/সাইটস্টেরল/ফিক্সড ওয়েল/সুনামিক/এসিড/টেনিং/টেরক্সেরল/টেরক্সেরন

প্রধান কাজ

প্রিয় পাঠক এই গাছটির আসল কাজ কিছু রয়েছে অর্থাৎ এই কাজটি বিশেষ যেই কাজের জন্য ব্যবহার করা হয় সেই কাজগুলি আমি আপনাদেরকে এখন বলার চেষ্টা করব তো চলুন জানা যাক

প্রিয় পাঠক অপরাজিতা গাছটি বাত ব্যথা কষ্ঠকাঠিন্য পাকস্থলের ব্যথা চর্মরোগ ও গনোরিয়ার জন্য খুবই কার্যকরী এজন্য আপনাদের যাদের এই সমস্যাগুলো রয়েছে তারা আপনারা এই গাছ থেকে ব্যবহার করতে পারেন

মেয়েদের হরমোনের জন্য কার্যকারিতা

প্রিয় পাঠক অপরাজিতা গাছ এমন একটি গাছ যে গাছটি হরমোনের জন্য কাজ হয়ে থাকে অর্থাৎ যা স্ত্রী সহবাসে দুর্বল তাদের জন্য এই গাছটি অনেক কার্যকর ক্ষমতা রাখে অপরাজিতার ফুলের সাথে স্ত্রী জননাঙ্গ ও গর্ভসহ এর সাদৃশ্য রয়েছে তাই স্ত্রীরোগ ও যৌন চাহিদা বৃদ্ধিতে অপরাজিতা ও ফুল ব্যবহার করা হয়

বাত ব্যথা ও সন্ধি বেদনায় কার্যকারিতা

এখন আমরা জানবো প্রিয় পাঠক বাত ব্যথা ও সন্ধি বেদনার ক্ষেত্রে কিভাবে এই গাছটি ব্যবহার করা যায় ৫০০ মিলিগ্রাম মূল চূর্ণের সাথে এক গ্রাম পরিমাণ সুট চুর্ন শুকনো আদা মিশিয়ে কুসুম গরম পানিসহ প্রত্যেক দিন দুইবার সেবন করবেন নিয়মিত 15-20 দিন সেবন করলে ব্যথা ইনশাল্লাহ কমে যাবে

কোষ্ঠকাঠিন্যের কার্যকারিতা

প্রিয় পাঠক আমাদের মধ্যে অনেক পাঠকগণ রয়েছি যাদের কোষ্ঠকাঠিন্যর রোগ রয়েছে তাদের জন্য আমি এ বিষয়টি বলবো আর এই গাছটি তারা কিভাবে খাবেন সে বিষয়টি আমি বলে দিব ২ গ্রাম অপরাজিতা বীজ চূর্ণের সাথে এক গ্রাম পরিমাণ মৌরি চূর্ণ মিশিয়ে কুসুম গরম পানিসহ রাত্রে শোয়ার পূর্বে সেবন করলে কষ্ট কাঠিন্য পরিষ্কার হয়ে যায়

স্ত্রীর যৌনাঙ্গের সমস্যায় ব্যবহার করা হয়

প্রিয় পাঠক অনেক আমাদের মহিলারা রয়েছেন যাদের স্ত্রী যৌনাঙ্গের সমস্যায় রয়েছেন তাদের জন্য এই অপরাজিতা গাছটি ব্যবহার করা হয় অপরাজিতায় রয়েছে টেরাক সেরল যা স্ত্রীর যৌনাঙ্গের সুস্থতায় ও যৌন চাহিদা বৃদ্ধিতে কার্যকরী ১ গ্রাম পরিমাণ অথবা ৫ থেকে ৮ টি অপরাজিতা ফুল ডাটা সহ মধুসহ দিনে ২-৩ বার সেবন করবেন

মূত্রনালীর সমস্যার জন্য ব্যবহার করা হয়

প্রিয় পাঠক আমাদের মধ্যে অনেকে রয়েছে যারা মূত্রনালীর সমস্যা নিয়ে ভুগছেন তো আমি তাদেরকে কিছু পরামর্শ দিব অর্থাৎ এই গাছ সম্পর্কে জানাবো যে কাজটি যেভাবে খেলে তারা এই সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পাবেন তো চলুন জানা যাক

১০ থেকে ১৫ গ্রাম মূলের ছাল সিদ্ধ করে দিনে দুইবার সেবন করবেন দেখবেন আপনার প্রস্রাবের কষ্ট দূর হয়ে গেছে

পাকস্থলীর ব্যাথার জন্য ব্যবহার করা হয়

প্রিয় পাঠক অনেকে পাকস্থলীর ব্যথার জন্য ভুগে থাকেন যারা এ সমস্ত সমস্যায় রয়েছেন তাদের জন্য এই অপরাজিতা গাছের অনেক উপকরণ রয়েছে সে সম্পর্কে এখনো আপনাদেরকে আমি বলব

এক গ্রাম শুকনো পাতা চুনের সাথে এক গ্রাম যৌন চূর্ণ ও পার্শ্ব মিলিগ্রাম বিট লবণ চূর্ণ মিশিয়ে প্রত্যেক দিন আহারের পর দুই থেকে তিনবার সেবন করলে ইনশাল্লাহ ব্যথা দূর হয়ে যাবে

চর্মরোগের জন্য ব্যবহার করা হয়

প্রিয় পাঠক অনেকে রয়েছি যাদের চর্মরোগ রয়েছে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন ধরনের রোগ রয়েছে সে বিষয়ে আমরা অনেকেই চিকিৎসা করেও কোন কাঙ্খিত ফলাফল পাচ্ছিনা তো আমি তাদেরকে এ বিষয়টি বলে দিব তারা যদি এটা ব্যবহার করতে পারে তাহলে অবশ্যই তারা এই অপরাজিতা ফুল থেকে উপকার পাবে


যারা এটাকে সেবন করবেন তারা কিভাবে সেবন করবেন তাহলে মূল চূর্ণ 500 মিলিগ্রাম বীজ চূর্ণ দুই গ্রাম ছাল 10 থেকে 15 গ্রাম পাতা চূর্ণ 1 গ্রাম

গনোরিয়ার জন্য ব্যবহার করা হয়

প্রিয় পাঠক গনোরিয়ার জন্য এই অপরাজিতা গাছটি ব্যবহার করা হয় অপরাজিতা গনোরিয়া রোগের জীবাণুর কার্যক্ষমতা কমায় ও এর আক্রমণ প্রতিহত করতে সহযোগিতা করে তাই গনোরিয়ার আক্রমণ প্রতিরোধে অপরাজিতা খুবই কার্যকরী এজন্য ব্যবহার করবেন এছাড়া অপরাজিতা মূলের সালের নির্যাসমূত্রথলী এবং মূত্রনালীর জন্য উপকারী মূলের ঠান্ডা দুধের সাথে মিশিয়ে বহুদিনের ব্যবহৃত করা হয় বিষ ভেজে গুড়া করে পেটের ব্যথা এবং পেটের ভেতরের কোষের বৃদ্ধির উপশমে ব্যবহৃত হয় মূল জ্বর এবং পেটের ব্যবহার উপকারী যারা আমাদের উপজাতি রয়েছেন তারা গর্ভপাত করার জন্য অপরাজিতা ফুল ব্যবহার করে থাকে

সেবন বিধি

মূল চুন ৫০০ মিলিগ্রাম/বিশ চূর্ণ02 গ্রাম ছাল ১০ থেকে ১৫ গ্রাম পাতা চূর্ণ ০১গ্রাম

তিন থেকে চার চা চামচ করে দিনে তিনবার খাবারের পর অথবা যারা চিকিৎসা করেন তাদের পরামর্শ অনুযায়ী খাবেন

সতর্কতা

প্রিয় পাঠক একটা জিনিসের যেমন ভালো দিক রয়েছে তেমনি তার খারাপ দিক রয়েছে সেক্ষেত্রে এখন আমি আপনাদেরকে অবশ্যই অনুরোধ করে বলবো গর্ভবতী মহিলাদের অপরাজিতা সেবন করা সম্পূর্ণ নিষেধ যে সমস্ত মা-বোনেরা গর্ভ অবস্থায় রয়েছেন তারা কখনোই অপরাজিতা ফুলের কোন অপরাজিতার কোন চিকিৎসা গ্রহণ করবেন না আশা করছি বিষয়টা বুঝতে পেরেছেন

লেখকের শেষ কথা

প্রিয় পাঠক এতক্ষণ আপনারা অপরাজিতা ফুলের উপকারিতা এবং অপরাজিতা ফুলের বৈশিষ্ট্য এ সম্পর্কে জানতে পারলেন যদি আপনার এখান থেকে উপকৃত হয়ে থাকেন তাহলে আমাদের ফলো করে দিবেন আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করে দেবেন যাতে করে পরবর্তী নোটিফিকেশন আপনি পেতে পারেন এবং আপনারা যদি আরো কিছু জানতে চান তাহলে আমাদেরকে মেসেজের মাধ্যমে জানিয়ে দিবেন আমরা সে বিষয়ে উত্তর দেয়ার চেষ্টা করব

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url